Home / ঢাকা / কবি শামসুর রহমানের পণ্ডশ্রম লেখাটাই একটা পণ্ডশ্রম।

কবি শামসুর রহমানের পণ্ডশ্রম লেখাটাই একটা পণ্ডশ্রম।

আমরা শুধুই কবিগুরুর বাঙ্গালী হয়ে থাকতে জানি। আমরা সামান্য কিছুতেই হুজুগে গুজুবে পচা ডোবার পানি পান করে দলে দলে হাসপাতালে ভর্তি হই। চাঁন্দে ফুলবাবুর কথা শুনে দা, বটি নিয়ে রাতে রাস্তায় নেমে পড়ি। আবার করোনা ভাইরাস হতে মুক্তির আশায় কাট মোল্লার কথায় মাঝ রাতে বনে-বাগানে থানকুঁড়ি পাতা ভক্ষণের প্রতিযোগিতায় নামি। আহারে বঙ্গালী! আমাদের জন্য কবি শামসুর রহমানের পণ্ডশ্রম কবিতাটি রচনা করাটাই ছিলো তাঁর একটা পণ্ডশ্রম, হয়তো তিনি বেঁচে থাকলে আজ হুজুগে বঙ্গালীর কান্ডকারখানা দেখে নতুন কিছু রচনা করতেন। আমরা করোনা ভাইরাস নিয়ে যতোটানা সচেতন তাঁর চেয়ে বেশি আতংকিত। সরকার ইতোমধ্যে সংক্রমণ ঠেকাতে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে কিন্তু আমরা দেখছি অভিভাবকরা বন্ধের সুযোগে ছেলে মেয়েদের নিয়ে ঘুরতে বেরিয়েছে। সৌদি আরবের মতো দেশ যখন সংক্রমণ ঠেকাতে হজ্ব ও মসজিদে জামাতে নামাজ আদায় বন্ধ ঘোষণা করেছে। ঠিক তখনই আমাদের দেশের কিছু ধর্ম ব্যাবসায়ি কাঠমোল্লারা দোয়া ও ওয়াজের নামে বিপুল আকারে জনসমাগম করছে। আমরাই এতো সচেতন যে নিজের ব্যাবহারিত মাক্সটা টান দিয়ে থুতনিতে নামিয়ে এক সিগারেট ৫ জনে ফুঁকছি আর ধোঁয়া ছাড়তে, ছাড়তে সরকার ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থার গুষ্ঠি উদ্ধার করছি।

আমরা যারা ঢাকা শহরে আছি তারাই সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে। উন্নত দেশগুলোতে ভাইরাস সংক্রমনের হার সপ্তাহান্তে জ্যামিতিক হারে বৃদ্ধিকে ও হার মানিয়েছে। বাংলাদেশে প্রথম সপ্তাহে সংক্রমণের হার সংক্রমিত অনেক দেশের চেয়ে বেশি এবং এভাবে চলতে থাকলে সংক্রমিত অন্যান্য দেশের চেয়ে সংকটে পড়বে বাংলাদেশ এবং ঢাকা সিটি। যদি বলেন কেনো? তহলে বলবো ছোট্ট এই শহরে প্রায় ২ কোটি লোকের বসবাস। রাস্তার একটা চায়ের দোকানে প্রতিদিন একই চায়ের কাপে কমপক্ষে একশত লোক চা পান করে, একই গ্লাসে শত-শত লোক পানি পান করে, একটা লিফটের বাটনে হাজার লোকের হাতের স্পর্শ পড়ে, টাকার নোট গুলো শত-শত মানুষের হাত বদল হয়। চায়না, ইতালির মতো ছড়াতে শুরু করলে ঢাকা শহরে ঘর থেকে বের হলেই খুব সহজেই সংক্রমিত হওয়ার সম্ভবনা।

আমি মনে করি এই মুহূর্তে সবচেয়ে ঝুঁকিতে আছে দেশের গার্মেন্টস শ্রমিকরা। সম্ভব হলে সংক্রমণ ঠেকাতে কিছুদিনের জন্য শ্রমিকদের সবেতনে ছুটি দিয়ে কারখানা বন্ধ রাখা উচিত। সকল ধরণের রাজনৈতিক, সমাজিক ও ধর্মীয় সভা সমাবেশ দ্রুত বন্ধ করা উচিত এবং এই বিষয়ক নির্দেশনা অমান্য করলে কঠোর আইন প্রয়োগ করা উচিত। অকারণে বাড়ির বাইরে না গিয়ে নিজ নিজ বসতবাড়িতে অবস্থান করা উচিত। কারণ অন্যান্য দেশের চেয়ে আমাদের দেশে এটা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে।

বিদেশ ফেরত প্রবাসীরা হোম কোয়ারান্টাইন এর নামে যে ভাবে বাজার-ঘাটে, জনসমাগমে অবাধে বিচরণ করছে তাতে করে অবস্থা ভয়ংকর রুপ নিতে মনে হয় সময় বেশি লাগবে না। প্রকৃতপক্ষে এই ভাইরাস শরীরে সংক্রমিত হওয়ার সাথে সাথে লক্ষণ দেখা দেয় না। ১/২ সপ্তাহ পরে এটা কার্যকর হতে থাকে ততোদিনে একজন সংক্রমিত লোক আরো ১০/২০ জনের সংস্পর্শে গিয়ে এটা ছড়াচ্ছে না তার কি কোনো নিশ্চয়তা আছে। এটাই সব দেশে হয়েছে বলেই সংক্রমণের সংখ্যা বৃদ্ধির হার জ্যামিতিক হারকেও হার মানিয়েছে। উন্নত দেশগুলোর সুন্দর জীবন যাপন, উন্নত চিকিৎসা ব্যাবস্থা থাকা সর্তেও সংক্রমণ ঠেকাতে সম্পূর্ণ ব্যার্থ। তাই বলছি আসুন সাবধান হই, সচেতনতার সাথে করোনা বিষয়ের সকল নির্দেশনা মেনে চলি।

মহান সৃষ্টিকর্তা সকলকে হেফাজত করুক…

হাফিজুল ইসলাম হাফিজ
বি এস এস (অনার্স), এম এস এস (রাষ্ট্রবিজ্ঞান), ঢাবি।

About বাংলার নিউজ ডেস্ক

Check Also

সফলভাবে সম্পন্ন হলো “সুন্দরবন” এর বার্ষিক বনভোজন ও নবীনবরণ-২০২০

বাংলার নিউজ ৭১ঃ  খুলনা জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতি,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (সুন্দরবন) এর বার্ষিক বনভোজন ও নবীনবরণ-২০২০ (১৪ …

“অধ্যাপক আনোয়ার বাংলাদেশ স্পাইন সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত “

প্রতিবেদক: মারছিফুল হাসান রনি সদ্য অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ স্পাইন সোসাইটির বার্ষিক সাধারণ সভায় নতুন কার্যনির্বাহী পরিষদ …

লায়ন্স ক্লাব ইন্টাঃ আয়োজিত অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে ঢাকা ক্যাপিটাল গার্ডেন এর অর্জন ,

লায়ন্স ক্লাব ইন্ট: District 315B 3 কালচারাল নাইটে Jara Convention Center Gulshan- 1 October service …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *