Home / প্রচ্ছদ / ‘জয় বাংলার ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন মাদারীপুরে’

‘জয় বাংলার ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন মাদারীপুরে’

 

নজরুল চর্চা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান অগ্নিবীণা কেন্দ্রীয় সংসদের প্রস্তাবনার ভিত্তিতে গত ৩ অক্টোবর ২০১৮ বুধবার মাদারীপুর জেলা সদরে মনোরম লেকের প্রবেশদ্বারে “জয় বাঙলা স্মৃতিসৌধ” এর ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করা হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় নৌ-পরিবহন মন্ত্রী জননেতা শাজাহান খান ও মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর যৌথভাবে এ স্মৃতিসৌধের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন। এ সময় এ উদ্যোগের মূল প্রস্তাবক অগ্নিবীণার প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান, নজরুল-ভাবুক কবি প্রবীণ সাংবাদিক এইচ.এম সিরাজ উপস্থিত ছিলেন।

মাদারীপুর সরকারি নাজিমউদ্দিন কলেজ প্রাঙ্গণে ব্যাপক আয়োজনে দিনব্যাপী “জয় বাঙলা উৎসব” উদযাপিত হয়। এ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান নূর, এম.পি এবং প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন মাননীয় নৌ-পরিবহণ মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা শাজাহান খান এমপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে নজরুল বিষয়ক আলোচনা করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ জাকীর হোসেন,জেলা প্রশাসক মো ওয়াহীদুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানের মূল প্রস্তাবক অগ্নিবীণা’র চেয়ারম্যান, প্রবীণ সাংবাদিক এইচ.এম সিরাজ বিশেষ অতিথি হিসেবে জয় বাংলার ইতিবৃত্ত নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তৃতা দেন। তিনি বলেন, আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ১৯২৪ সালে তৎকালীন স্বনামখ্যাত বিপ্লবী পূর্ণচন্দ্র দাস এর ৬ষ্ঠ বারের কারামুক্তি উপলক্ষে নাগরিক সংবর্ধনা সভায় যোগ দিতে এসে “পূর্ণ অভিনন্দন” শিরোনামে রচিত কবিতায় “জয় বাঙলা” কথাটি প্রথম উচ্চারণ করেন। বঙ্গবন্ধু এখান থেকেই নিয়েছিলেন মুক্তিযুদ্ধের শ্লোগান “জয়বাংলা” কথাটি।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মাদারীপুর জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি ও জয় বাংলা উৎসব উদযাপন কমিটির চেয়ারম্যান বিশিষ্ট সমাজসেবী এ্যাড. ওবায়দুর রহমান খান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জয় বাঙলা উৎসব উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ও বাংলাদেশ কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাকিলুর রহমাান সোহাগ তালুকদার।

এখানে উল্লেখ্য, গত ৪৭ বছরের স্বাধীন বাংলাদেশে এই-ই প্রথমবার উদযাপিত হলো “জয় বাঙলা উৎসব”। এ উপলক্ষে প্রকাশিত হয়েছে “বাঙালীর অহংকার” শীর্ষক একটি আকর্ষনীয় প্রকাশনা ।

বাংলাদেশের প্রখ্যাত নজরুল সংগীত শিল্পী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত ও নৃত্যকলা অনুষদের চেয়ারম্যান ড. লিনা তাপসী খান অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন এবং স্বনামখ্যাত নজরুল-আবৃত্তিশিল্পী সীমা ইসলাম,নড়াইলের কবি সৈয়দ খায়রুল আলম অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন।

About সৈয়দ খায়রুল আলম, সহ-সম্পাদক,

Check Also

মান্দায় বন্যা কবলিত অঞ্চল পরিদর্শন করলেন বিএনপির নেতা মকলেছুর রহমান

শাহাদৎ রাজীন সাগর, স্টাফ রিপোটারঃ নওগাঁর মান্দায় ভারি বর্ষণ ও উজান থেকে ধেয়ে আসা পানির …

কুষ্টিয়া শহরের প্রসিদ্ধ মিষ্টান্ন ও খাবার প্রতিষ্ঠান আলোকিত মৌবন।

একটি মানুষ। সাফিনা আনজুম জনী Safina Anzum Jony। কিন্ত তিনি অনেকের কাছে আলোকবর্তিকা হিসেবেই উপাখ্যান। …

আজ পাইকগাছা পৌরসভার মাধ্যমে নবলোক এর হাইজিন কিট বিতরণ

পাইকগাছা প্রতিনিধিঃ এন.কে রায়ঃ আজ পাইকগাছা পৌরসভার ২টি (৩,৪)ওয়ার্ডের সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলর দ্বয় নিজ নিজ ওয়ার্ডের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *