Home / অর্থনীতি / শেখ হাসিনার সরকার শ্রমিক বান্ধব সরকার

শেখ হাসিনার সরকার শ্রমিক বান্ধব সরকার

আজ বিকালে জাতীয় শ্রমিকলীগের ৪৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে খুলনা মহানগরীতে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহীদ হাদিস পার্ক থেকে শুরু হয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্হান ঘুরে আবার শহীদ হাদিস পার্কে এসে শেষ হয় । শোভাযাত্রা শেষে শহীদ হাদিস পার্কে এক বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
সমাবেশে জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি বি.এম. জাফরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র খুনলা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি জননেতা তালুকদার আব্দুল খালেক এবং প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য, নব্বইয়ের দশকের তুখোড় ছাত্রনেতা এস.এম কামাল হোসেন। তিনি প্রধান বক্তার বক্তৃতায় বলেন “বঙ্গবন্ধু থেকে শুরু করে দেশরত্ন শেখ হাসিনার সরকার এই দেশের শ্রমজীবী মানুষের জন্য সব সময় কল্যাণকর কাজ করে গেছেন।

বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীনের পর সকল মিল কলকারখানা কে জাতীয় করন করেছিলেন। তিনি ব্যাংক গুলোকেও (সোনালী, রুপালী, অগ্রনী) শ্রমিক ইউনিয়ন গঠনের অনুমতি দিয়ে দাবি দাওয়া আদায়ের পথ করে দিয়েছিলেন।

তিনি তার বক্তৃতায় আরো বলেন; দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও বন্ধ হয়ে যাওয়া প্রতিটি মিল কলকারখানা চালু করেন।তাদের মুজুরি বৃদ্ধি করেন।শ্রমিকদের মুজুরি মাত্র ১৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫৩০০ এবং এরপর বর্তমানে প্রায় ১১০০০ টাকা করেছেন। কৃষকদের বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ দিচ্ছেন। সহজলভ্যে সার দিচ্ছেন। সেচ প্রকল্পে বিদ্যুত পাচ্ছেন।
এছাড়া সমাবেশে বিশেষ বক্তা হিসাবে বক্তব্য  রাখেন খুনলা ২ এর সংসদ সদস্য, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান সহ আরো অনেকে।

About বাংলার নিউজ ডেস্ক

Check Also

পাইকগাছা সীমান্তে গৃহবধুকে ইফতারি পানীয়র সাথে বিষ মিশিয়ে হত্যা : স্বামী ও দেবর আটক -২

মোঃ সোহাগ পান্না অজিয়ার খুলনা বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান খুলনার পাইকগাছার কয়রার সীমান্তে এক গৃহবধুকে ইফতারি …

মায়ের আঁচল সাহিত্য সামাজিক পরিষদ (মাআসাপ) বাংলাদেশ এর উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

হারুন অর রশিদ সাগর নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:- ৮ মে ২০২০ শুক্রবার সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ …

কি পরিমান ধৈর্য শক্তির প্রয়োজন ৩৮ তম দিন ধারাবাহিক কার্যক্রম চালিয়ে নেওয়া।

আজ ৩৮ তম দিন কি পরিমান ধৈর্য শক্তির প্রয়োজন ৩৮দিন ধারাবাহিক ভাবে কার্যক্রম চালিয়ে নেওয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *